Main Menu

ভোলায় গলায় ফাঁস দিয়ে মুদি ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা: চিরকুটে লিখা, দায়ী নন পরিবার

হাসনাইন আহমেদ হাওলাদার, ভোলা জেলা সংবাদদাতাঃ 

জেলা ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার হাসান নগর ইউনিয়নের (০৭) নং ওয়ার্ড এর, মির্জাকালু কাজিরহাট বাজারে নিজের দোকানের আড়া থেকে মুদি ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের নাম মোঃ নুরনবী (৫৫), পিতাঃ মৃত ফজলে রহমান। অর্থনৈতিক সমস্যা ও লেনদেন সম্পর্কিত হতাশা থেকে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সোমবার (০২ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতের দিকে নিজ দোকানের আড়ার সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দেন তিনি।

পরিবার ও স্থানীয় ব্যবসায়ীদের বরাতে পুলিশ জানিয়েছে, ‘নুরনবী ঋণগ্রস্ত ছিলেন। স্থানীয় অনেক ব্যবসায়ীরা ও বিভিন্ন সমিতি তার কাছে টাকা পেতেন, তিনিও বিভিন্ন লোক থেকে অনেক টাকা পেতেন। ব্যবসা ও সংসারের টানাপোড়েনে হতাশাগ্রস্ত হয়ে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন।’

এ সময় নিহতের দোকানে তারই লিখা একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। যেখানে লিখা ছিলো- আমি একজন দেনাদার, আমার কাছথেকে বিভিন্ন এনজিও সংস্থা লাখ লাখ টাকা পাবে এবং আমিও আমার অনেক কাস্টমার থেকে প্রায় ৫-৭ লাখ টাকা পাবো। কিন্তু আমার পাওনা টাকা কেউই দিচ্ছেনা, তাই আমার দেনা পরিষোধ করতে না পেরে নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে চিরতরে চলে গেলাম। আমার এ আত্মহত্যার জন্য আমার পরিবারের কেউই দায়ী নন।

ঘটনাস্থলে থাকা থানা এসআই স্বপন কুমার হাওলাদার ও মির্জাকালু পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মোঃ ফোরকান হাওলাদার সাংবাদিকদের এ তত্ত্ব নিশ্চিত করেছেন।

তার আরও বলেন, ‘অর্থনেতিক সংকট ও হতাশা থেকে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে। পরে বিনা ময়নাতদন্তে লাশ দাফনের অনুমতি পেলে, বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে কাজিরহাট বাজারের দক্ষিণ মাথা জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে তার দাফন সম্পন্ন হয়। 






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*