Main Menu

ফসলি জমি রক্ষায় নিজেই মাঠে নামলেন সাংসদ কুদ্দুস

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.
তিন ফসলি জমিতে অবৈধ পুকুর খননের বিরুদ্ধে এলাকাবাসির মানববন্ধন ও সাংসদ আব্দুল কুদ্দুসের কঠোর হুসিয়ারী সত্বেও পুকুর কাটা বন্ধ না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত পুকুর কাটা রোধে স্বয়ং নিজেই মাঠে নামলেন নাটোর ৪ আসনের সাংসদ অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস।

সোমবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের চড়পাড়া মাটি ব্যবসায়ী বাচ্ছুর মাটি বহনকারী ৫টি ট্রাক্টর আটক করে থানায় ফোন দেন। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫টি ট্রাক্টর আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এসময় মাটি কাটা ভেকুমেশিন পুকুর থেকে তুলে দেন। সাংসদ আব্দুল কুদ্দুসের এই কর্মকান্ডকে এলাকাবাসি সাধুবাদ জানিয়েছেন।

ওই সময়ে সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস বলেন, গুরুদাসপুরে পুকুর এখন বড় একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। পুকুর খনন করার ফলে আশেপাশের জমিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয় এবং মাটিবহন করার ফলে গাড়ীর জন্য সরকারের কোটি কোটি টাকার রাস্তা নষ্ট হচ্ছে। এভাবে পুকুর খনন চলতে থাকলে হাজার হাজার হেক্টর কৃষি জমি জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হবে। দেশে খাদ্য ঘাটতি প্রকোট আকারে দেখা দিবে। দেশ হয়ে উঠবে পরনির্ভর। কোন ভাবেই পুকুর খনন করতে দেওয়া হবে না। এলাকাবাসিকে এই পুকুর খননের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে আহবান জানান তিনি। এসময় তার সাথে মশিন্দা ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমানসহ বেশ কয়েকজন দলীয় নেতাকর্মিরা উপস্থিত ছিলেন। একটি ব্যক্তির স্বার্থে হাজার হাজার মানুষের সমস্যা হবে এটা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া হবেনা। পুকুর খনন বন্ধসহ সব ধরনের অনৈতিক কাজ প্রতিহত করার জন্য গুরুদাসপুর উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা চান তিনি।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*