Main Menu

নতুন বিতর্কে জড়ালেন ‘বেদের মেয়ের জোসনা’র অঞ্জু

বিনোদন ডেস্ক: নতুন বিতর্কে জড়িয়েছেন ‘বেদের মেয়ে জোসনা’খ্যাত অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষ। দেশটির রাজনৈতিক মহলে চলছে তাকে নিয়ে এই বিতর্ক। বুধবার কট্টর হিন্দুত্ববাদী দল ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দিয়ে ভারতের রাজনীতিতে পা রাখেন এক সময়ের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

এদিন বিজেপির পশ্চিমবঙ্গের প্রধান কার্যালয়ে তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দলটিতে যোগ দেন। আর এরপরই তাকে নিয়ে সমালোচনায় মেতে ওঠে অন্য রাজনৈতিক দলগুলো।

এই সমালোচনায় যোগ দিয়েছে তৃণমূল থেকে কংগ্রেসের মতো বৃহত্তর দল দুটিও। এসব সমালোচনার মাঝে যে প্রশ্নটি ওঠে তাহলো – অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষ কি ভারতের নাগরিক? নাকি বাংলাদেশের? তিনি বাংলাদেশি হলে বিজেপিতে যোগদান করেন কি করে?

এবার অঞ্জু ঘোষকে নিয়ে এই বিতর্কের আগুনে জল ঢাললো বিজেপি। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, বিজেপির পক্ষ থেকে আজ বুধবার জানানো হয়, অঞ্জু ঘোষ বাংলাদেশের নাগরিক নন। তিনি ভারতের নাগরিক।

প্রমাণ হিসাবে বলা হয়, অঞ্জুর কাছে ভারতের পাসপোর্ট আছে। গেরুয়া শিবির থেকে দাবি করা হয়, সদ্য অনুষ্ঠিত লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন অঞ্জু। বিজেপি থেকে পাল্টা প্রশ্ন ছোঁড়া হয়, ভারতীয় নাগরিক না হলে অঞ্জু ভোট দেন কি করে?

বিজেপির এমন পাল্টা জবাবেও বিতর্ক থামেনি। অঞ্জুর যোগদান বিতর্কের সঙ্গে ফের মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে লোকসভা নির্বাচনের আগের একটি ঘটনা। সে সময় রায়গঞ্জের দেশটির পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল প্রার্থী কানহাইয়ালাল আগরওয়ালের জন্য প্রচার করতে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের অভিনেতা ফেরদৌস।

ওই সময় তৃণমূলকে এক হাত নেন বিজেপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ একটি বিতর্ক সভায় অংশ নিয়ে বলেছিলেন, ‘আইন ভাঙার নতুন নজির স্থাপন করেছে তৃণমূল। পশ্চিমবঙ্গের সংখ্যালঘু মুসলিম ভোটারদের আকৃষ্ট করতে দেশের আইনকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে বাংলাদেশের অভিনেতাদের প্রচারে নিয়ে এসেছে তৃণমূল।’

সেই ইতিহাস টেনে এক সময়ের জনপ্রিয় বাংলাদেশি অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে সেসব কটাক্ষের জবাব দিতে নড়েচড়ে বসে তৃনমূল। প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির উত্থানে দলবদলের হিড়িক লেগেছে। তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে অনেকেই এবার যোগ দিচ্ছেন বিজেপি শিবিরে।

সেই শিবিরের নতুন সদস্য হলেন অঞ্জু ঘোষ। অঞ্জুর যোগদান প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, তারা আসল বেদের মেয়ে জোসনা পেয়েছেন। এদিনের যোগদান পর্বে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার।

বিজেপিতে যোগদান নিয়ে অভিনেত্রী নিজে কিছু বলেননি। যোগদান পর্ব শেষ হতেই গণমাধ্যমকে অনেকটা আড়াল করেই নিজের বাড়ির দিকে রওনা দেন এই অভিনেত্রী।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*