Main Menu

ডেঙ্গু পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে, এটা বলার সময় হয়নি- স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

বিবিসিএকাত্তর ডেস্কঃ
ডেঙ্গু পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে, এটা বলার সময় হয়নি। পরিস্থিতি নির্ভর করছে বৃষ্টির ওপর। মুষলধারে বৃষ্টি হলে মশা কমবে, ডেঙ্গুও কমবে। বৃষ্টি থেমে থেমে হলে এডিস মশা বাড়বে। আবার গরম আবহাওয়ার বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকলেও মশা বাড়বে। তাতে ডেঙ্গুর প্রকোপও বৃদ্ধির আশঙ্কা আছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা ও ঢাকার বাইরে হাসপাতালে নতুন ডেঙ্গু রোগীর ভর্তির সংখ্যা কমেছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলা হয়েছে।

সোমবার (১২ আগস্ট) বিকালে ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত প্রেস ব্রিফিং করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ।

ব্রিফিংয়ে বলা হয়, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন ২ হাজার ৯৩ জন রোগী ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। এই সংখ্যা ছিল এর আগের ২৪ ঘণ্টার চেয়ে ২৪১ জন কম।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসা অব্যাহত রাখার জন্য স্বাস্থ্য বিভাগের চিকিৎসক, নার্সসহ সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে স্বাস্থ্যকর্মীদের ঈদের ছুটি বাতিল হওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম।

অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক সানিয়া তাহমিনা বলেন, এ পর্যন্ত ৪৩ হাজার ২৭১ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে, এর মধ্যে ৩৫ হাজার ২২৫ জন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে। সোমবার হাসপাতালে ভর্তি ছিল ৮ হাজার ৬ জন। এর মধ্যে ঢাকার হাসপাতালে ৪ হাজার ২০২ জন ও ঢাকার বাইরে ৩ হাজার ৮০৪ জন।

ঈদের ছুটি শেষে শহরে নিজ বাসায় ফেরার সময় কিছু করণীয় বিষয়ে পরামর্শ দেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। তিনি বলেন, পরিবারের সব সদস্যকে হাত-পা ঢাকা জামাকাপড় পরে ঘরে ঢুকতে হবে। ঘরে ঢুকে সব জানালা-দরজা খুলে ফ্যান ছেড়ে দিতে হবে। পর্দার পেছনে, চেয়ার-টেবিল-খাটের নিচে স্প্রে করতে হবে। কমোড ফ্লাশ করতে হবে, বেসিনে পানি ছাড়তে হবে। জমে থাকা সম্ভাব্য সব জায়াগার পানি ফেলে দিতে হবে।



(পরের সংবাদ) »



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*