Main Menu

টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের লার্নিং সেন্টার পরিদর্শনে মার্কিন টিম

নুর মোহাম্মদ, কক্সবাজার ॥
টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়ার ইউনিয়নের শামলাপুর গ্রামে অবস্থিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য ইউনিসেফ এর সহায়তায় নির্মিত ও কোডেক এনজিওর রিচালনাধীন সূর্যমূখী কামিনী নামক দুইটি লার্নিং সেন্টার (স্কুল) পরিদর্শন করেছেন মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলিস এয়েলস ও বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার।

এদিকে মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও রাষ্ট্রদূত লার্নিং সেন্টারে অধ্যায়নরত রোহিঙ্গা শিশুদের কাছে জানতে চান- তাদের কোন সাবজেক্ট বেশি ভাল লাগে! তখন রোহিঙ্গা শিশুদের কারো ইংরেজী, কেউ গণিত, কেউবা বার্মিজ ভাষার সাবজেক্ট বেশি ভাল লাগে বলে জানিয়েছে। জিজ্ঞাস করে- তোমরা বড় হয়ে ভবিষ্যতে কি হতে চাও? এমন প্রশ্নে রোহিঙ্গা শিশুরা কেউ ডাক্তার, কেউ শিক্ষক, কেউ বা সমাজসেবক হতে চায় বলে উত্তর জানায়।

রোহিঙ্গা শিশুদের স্বপ্নের কথা শুনে অতিথিরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন এবং তারা বেশ কিছুক্ষণ সময় রোহিঙ্গা শিশুদের সাথে আড্ডায় মেতে উঠেন। পরে বেলা সাড়ে এগারটা সময় মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও মার্কিন রাষ্ট্রদূত শামলাপুর ত্যাগ করেন। গতকাল ৭ নভেম্বর বেলা ১১টা সময় তারা এই স্কুল বা লার্নিং সেন্টার গুলো পরিদর্শনে যান। এ সময় সঙ্গে ছিলেন শামলাপুর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ (সিআইসি) তুলক চক্রবর্তী। এসময় ইউনিসেফ, কোডেক এনজিওর পদস্থ কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*