Main Menu

চকরিয়া পৌরসভার নাগরিক হিসেবে জাহেদুল ইসলাম লিটু

মনসুর মহসিন বিবিসি একাত্তরঃ    

কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি,  সাবেক সফল ছাত্রনেতা ও যুব নতা, সাবেক প্যানেল মেয়র চকরিয়া পৌরসভা জননেতা জাহেদুল ইসলাম লিটু, চকরিয়া পৌরসভার যানজট নিরসনে সমসাময়িক উদ্যোগ ও বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে ব্যাক্তিগত মতামত তুলে ধরেছেন।

যা বিবিসি একাত্তর পাঠকের কাছে হুবহু তোলে ধরা হয়েছেঃ       

চকরিয়া পৌরসভায় বসবাসরত একজন নাগরিক হিসেবে বলতে চাইঃ
“”””””””””””””””””””””””””””””””””” দীর্ঘ সময়ধরে চকরিয়ায় স্বাধীনমন্চ সহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন পর্যটননগরী কক্সবাজারের প্রবেশদ্বার হিসেবে চকরিয়া পৌর শহর কে যানজট মুক্ত,যত্রতত্র রাস্তা দখল করে বিভিন্ন প্রকারের দোকান বসিয়ে জনদূর্ভোগ তৈরী করা,মানুষ চলাচলের রাস্তাকে টমটম,সি,এন,জি,অটো রিকসা সহ বিভিন্ন যানবাহনের ষ্টেশন হিসেবে দখল করে রাখা এবং তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন উপায়ে গোপনে-প্রকাশ্যে চাঁদা আদায় করা,মূল শহরে বাস কাউন্টার বসিয়ে চকরিয়া শহীদ আবদুল হামিদ বাস টার্মিনাল কে অকার্যকর করে রাখা সহ বিভিন্ন অনিয়ম,অসংগতির বিরুদ্ধে পৌর কর্তৃপক্ষ সহ উপজেলা প্রশাসন কে দাবী-দাওয়া দিয়ে আসছে।চকরিয়ার সর্বস্তরের সচেতন জনগন তাদের এই উদ্দ্যোগ কে স্বাগত জানিয়েছে।এমতাবস্থায় সর্বশেষ পৌর কর্তৃপক্ষ মেয়র মহোদয় স্বাক্ষরিত একটি আবেদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয় কে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার জন্য প্রেরন করেন।এ ক্ষেত্রে জনমনে প্রশ্ন আসা স্বাভাবিক আসলে পৌরসভা কি উপজেলা প্রশাসনের আওতাধীন?পৌর শহরের এই হজবরল অবস্থা দূরকরনে পৌর কর্তৃপক্ষের কি কোন দায়িত্ব নেই?নাকি পৌরকর্তৃপক্ষ এই জনদূর্ভোগ থেকে আর্থিকভাবে কোন বিশাল ফায়দা হাসিল করে থাকেন?রাস্তা-ঘাটের অভাবনীয় উন্নয়ন হয়েছে এটার জন্য মেয়র মহোদয়,মাননীয় এম,পি মহোদয় সর্বোপরি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র প্রতি চকরিয়াবাসী কৃতজ্ঞ।কিন্তু বৃহত্তর পরিসরে পৌর কর্তৃপক্ষের জনসেবার বিভিন্ন সেবাখাত,শহরের পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা,দায়িত্বশীলতার বিষয় নিয়ে জনমনে অসন্তোষ বিরাজ করছে।সর্বোপরি আমরা আশা করি চরিয়া পৌরসভা কর্তৃপক্ষ তাদের উপর জনগন কর্তৃক অর্পিত দায়িত্বের প্রতি আরো বেশী শ্রদ্ধাশীল-যত্নবান হবেন।এবং বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন সমূহের উত্তাপিত গণসম্পৃক্ত সাধারন জনগনের কাছে সমাদৃত দাবী গুলো কার্যকর করতে একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে জরুরী পদক্ষেপ গ্রহন করবেন।মহান আল্লাহ সহায় হউক।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*