Main Menu

গুরুদাসপুরে ব্র্যাক কর্মকর্তাকে কুপিয়ে ৬ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার ৪

জালাল উদ্দিন গুরুদাসপুর (নাটাের)
নাটােরের গুরুদাসপুরের দস্যুতা মামলার ৪ আসামীকে গ্রেফতার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারাক্তিমূলক জবানবন্দী শেষে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়ােজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা এ তথ্য জানান। প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয় গত ২০ আগস্ট গুরুদাসপুরের ব্র্যাক অফিস খুবজীপুর শাখার ব্যবস্থাপক মুক্তার হােসেন ও হিসাব কর্মকর্তা জায়াহরুল হক মানিক মােটরসাইকেলযােগে উপজেলার চাঁচকেড় জনতা ব্যাংক শাখায় টাকা জমা দিতে যাচ্ছিলেন। পথে আনন্দনগর এলাকায় মুখােশ পরিহিত তিন ব্যক্তি মােটরসাইকেলযােগে এসে তাদের পথ রােধ করে চাপাতি দ্বারা উপর্যুপরি কুপিয়ে তাদের কাছে থাকা ৬ লাখ ৪৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে গুরুদাসপুর থানায় মামলা হলে পুলিশ অভিযানে নামে। অভিযানের এক পর্যায়ে গােপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৪ আগস্ট রাজবাড়ি জেলার দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা থেকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযােগে গুরুদাসপুর উপজেলার সাবগাড়ী গ্রামের সামাদ সরদারের ছেলে আনাস আলী ও সিংড়া উপজেলার নাসিয়ারাকাদী গ্রামের ময়ন উদ্দিনের ছেলে শ্যামল আলীকে গ্রেফতার করে।

তাদের দেওয়া তথ্যমতে একই এলাকা থেকে ২৫ আগস্ট গুরুদাসপুর উপজেলার যােগিন্দ্রনগর গ্রামের মজনু মােল্লার ছেলে আজাদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে এবং ছিনতাইয়ের ২ লাখ ৯ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। পরে গ্রেফতারকৃতরা আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীতে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। এ ছাড়া গ্রেফতারকৃত আনাস ও আজাদুলকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে স্বীকার করে যে চলতি বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারী তারা একই উপজেলার জ্ঞানদানের গ্রামে প্রাণ ডেইরি হাব টাকা দিতে যাওয়ার সময় গুরুদাসপুর শাখার দুইজন কর্মচারীকে চাপাতি দিয়ে ভয় দেখিয়ে শুভ ও নাসির ৫ লাখ ৩৮ হাজার ৩৩৬ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সিংড়া উপজেলার নাসিয়ারাকান্দী গ্রামের ওয়াজ উদ্দিনের ছেলে নাসির উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে সেও আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীতে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*