Main Menu

এপেক্স ক্লাব অব চকরিয়া সিটির দশম ডিনার মিটিং সম্পন্ন

 

বিবিসি একাত্তর ডেস্কঃ

আন্তর্জাতিক সামাজিক সংগঠন এপেক্স ক্লাব অব বাংলাদেশ এর আওতাধীন এপেক্স ক্লাব অব চকরিয়া সিটির ১০ম ডিনার মিটিং, সার্ভিস, স্কুলিং ও বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২৩ আগষ্ট’১৯ তারিখ বিকেল ৪ টায় স্থানীয় গ্রীন চিলি রেস্টুরেন্টের হল রুমে অনুষ্ঠিত হয়।
এপেক্স ক্লাব অব চকরিয়া সিটির প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট এম এম এইচ ইয়াসির আরাফাত চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ও ডিএনএই এডভোকেট মোঃ সালাহউদ্দিন কাদেরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত ডিনার মিটিংয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এপেক্স ক্লাব অব বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল সার্ভিস ডিরেক্টর (এনএসডি) এপেক্সিয়ান মোঃ ইলিয়াস জসিম। 

প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এপেক্স ক্লাব অব বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল একশান ডাইরেক্ট (এনএডি)৷  এপেক্সিয়ান ড. হাসান আলী।
প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এপেক্স ক্লাব অব বাংলাদেশ ডিস্ট্রিক্ট -০৩ এর গভর্নর এপেক্সিয়ান এডভোকেট এরশাদুর রহমান রিটু।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চকরিয়া উপজেলার ভেওলা মানিকচর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু ইউসুফ, বহদ্দারকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মাষ্টার জসিম উদ্দিন।
এসময় এপেক্স ক্লাব অব চকরিয়া সিটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আবুল মনসুর মোঃ মহসিন, জুনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট রিয়ানুল কবির রিয়ান, এক্সপেনশন ডিরেক্টর মহিউদ্দিন মহত খোকন, ট্রেজারার শজরুন্নাহার বুলু, সার্ভিস ডিরেক্টর মোঃ তানভীরুল ইসলাম, সার্জেন্ট এন্ড আর্মস মোঃ আব্দুল্লাহ, সিনিয়র এপেক্সিয়ান এস এম মুসলিম নেওয়াজ মানিক, মোঃ শহিদুল্লাহ, জিল্লুর রহমান, শারমিন জন্নাত ফেন্সি, করবী পাল, হুরেজন্নাত নূরী, উম্মে সালমা ঝিলিক, মুজিবুর রহমান, রাহিমা কাউচার, তামজিদুল ইসলাম চৌধুরী, মিজানুর রহমান, মামুনুর রশীদ, সিফাত, সৌরভ, আব্দুল মোমেন, মানিক, আবু তৈয়ব, এডভোকেট মাঈনুল আমিন ইমু, সিনিয়র সাংবাদিক ওমর আলী, সাংবাদিক মুসা বিপ্লব, ইসমাইল তুহিন, আরমান, মোবারক সহ এপেক্স ক্লাব অব চকরিয়া সিটির এপেক্সিয়ান বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এপেক্স ক্লাব ১৯৩১ সালে অষ্ট্রেলিয়ায় প্রতিষ্ঠিত হয়ে ১৯৬৭ সালে বাংলাদেশে আসে। বর্তমানে সারা বাংলাদেশে ১২৩ টি এপেক্স ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।
“SERVICE” *CITIZENSHIP* #FELLOWSHIP#
এপেক্স ক্লাব প্রধানত তিনটি লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে থাকে। সেবা, সুনাগরিকত্ব ও সৌহাদ্যপূর্ণ নিবিড় বন্ধুত্ব তৈরি করা।
সেবা ( Service)ঃ সমাজের কম ভাগ্যবানদের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী বিভিন্ন সেবা কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো – চালের বস্তা বিতরণ, কাপড়-ছোপড়, আসবাবপত্র, বাজার খরচ, মেয়ের বিবাহের খরচের সহযোগিতা ঈদের সময় নতুন জামা ও মাংসের ব্যাবস্থা করা, রোগের চিকিৎসা খরচের সহযোগিতা উল্লেখযোগ্য।
মসজিদ, মাদ্রাসা, কবরস্থানে মাটি ভরাট, স্কুল, কলেজ, মন্দির, পাঠাগার সহ যে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা উপকরণ, বৃক্ষ প্রভৃতি সেবা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।
সুনাগরিকত্বদ ( Citizenship) : জনগণ কে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে যে সকল নিয়মাবলি মেনে চলতে হয়, সেই সকল শিক্ষা সমূহ এপেক্স ক্লাবের প্রত্যেক সদস্যদের শেখানো হয় এবং তা পালন করতে হয়। প্রত্যেক সদস্যদের সু-নাগরিক হতে উদ্ভুদ্ধ করা হয়।
বন্ধুত্বঃ বিশ্ব ব্যাপী সকলের সাথে নিবিড় বন্ধুত্ব তৈরির শিক্ষা সমূহ এপেক্স ক্লাব তাদের সদস্যদের দিয়ে থাকেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*