Main Menu

ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সাথে জড়িত হিজরি সন,এইচ এম শহিদুল্লাহ

রিপোর্ট :-মুহাম্মদ তৈয়্যবুল ইসলাম, রাঙ্গুনিয়া
বাঙ্গালী হিসেবে আমরা বাংলা নববর্ষ পালন করি। ঠিক একইভাবে মুসলমান হিসেবে হিজরি নববর্ষ আমরা কেন পালন করনা। হিজরি সন মুসলমানদের পালন করা উচিৎ কারণ ইসলামের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সাথে জড়িয়ে আছে এই হিজরি সন । তিনি আরো বলেন, ইসলাম শান্তি ও সাম্যের ধর্ম, ধর্ম নিয়ে যারা সংঘাত ও বিভেদ সৃষ্টি করতে চায় তাদের ব্যাপারে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। বিকৃত কর্মকান্ডের মাধ্যমে যারা ইসলামের দূর্নাম ঘটাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে শান্তিপ্রিয় মানুষকে সোচ্ছার হতে হবে,হিজরি নববর্ষের শিক্ষা আমাদের জীবনে ধরণ করতে হবে,প্রতি বছরের ন্যায় এইবছরো সারা দেশ ব্যাপী হিজরি নববর্ষ পালিত হচ্ছে,তারই ধারাবাহিকতায় রাঙ্গুনিয়া রানীর হাট হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের আয়োজনে হিজরি নববর্ষ ১৪৪১পালিত হচ্ছে, বা:ইসলামী ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সাবেক সভাপতি এই এম শহিদুল্লাহ প্রধান বক্তার বক্তব্যে এইসব কথা বলেন, রাঙ্গুনিয়া রানীর হাট বাজার চত্বরে হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের আয়োজনে হিজরি নববর্ষের উপদেষ্টা আলহাজ্ব আব্দুল্লাহ আল-মামুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রানীর হাট জালানি ও কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইউছুপ মাতব্বর, উদ্বোধক ছিলেন গাউছিয়া কমিটি চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সহ-দাওয়াতে খায়র সম্পাদক আলহাজ্ব সেকান্দর হোসেন চৌধুরী,বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামপুর ইউনিয়ন গাউছিয়া কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব ছালেহ আহমদ সওদাগর, রাজানগর গাউছিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস চৌধুরী, আবুল মুতালেব, ব্যবসায়ী আল আজাদ টিপু, যুবনেতা মোহাম্মদ হোসাইন,যুবনেতা শাহেদুল আলম শাহেদ, এডভোকেট রাশেদ পারভেজ, হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের উপদেষ্টা ছাত্রনেতা আব্দুল খালেক তালুকদার, মুহাম্মদ আজিজুল হক, ওবাইদুল কাদের, আহব্বায়ক নেজাম উদ্দিন, আব্দুল্লাহ আল-ইমরান প্রমুখ, অনুুুষ্ঠানে মনোমুগ্ধকর ইসলামী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে, ইমাম শেরে বাংলা ইসলামী সাংস্কৃতিক ফোরাম, রজবীয়া নুরীয়া ইসলামী সাংস্কৃতিক ফোরাম ও আল আমিন ইসলামী সাংস্কৃতিক ফোরামের শিল্পীবৃন্দ নাতে রাসুল(দঃ) পরিবেশ করেন।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*